বৃহস্পতিবার, ০৬ আগস্ট, ২০২০
ভারতে এক দিনে রেকর্ড আক্রান্ত, মৃত্যু বেড়ে ৯
নিজস্ব প্রতিবেদক, ৭১ সংবাদ ডট কম :
Published : Tuesday, 24 March, 2020 at 10:37 AM

ভারতে এক দিনে রেকর্ড আক্রান্ত, মৃত্যু বেড়ে ৯করোনাভাইরাস ভারতে আশঙ্কা-আতঙ্ক বাড়িয়েই চলেছে। এই ভাইরাসের আক্রমণে প্রাণহানি এবং সংক্রমণে রাশ টানা যাচ্ছে না। এখন পর্যন্ত ভারতে করোনা সংক্রমণে মৃত্যু হয়েছে ৯ জনের। পশ্চিমবঙ্গে সোমবার প্রথম করোনা আক্রান্তের মৃত্যু হয়েছে। হিমাচলপ্রদেশে করোনা সংক্রমণে মারা গেছে আমেরিকাফেরত এক প্রৌঢ়। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের হিসেব অনুযায়ী, আক্রান্তের সংখ্যা ৪৬৮। ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিক্যাল রিসার্চ (আইসিএমআর)-এর হিসেবে অবশ্য সংখ্যাটা ৪৭১। সোমবার নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন শতাধিক ব্যক্তি। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এবং আইসিএমআর-এর দাবি, ঠিক মতো লকডাউন কার্যকর করতে পারলে সংক্রমণকে নিয়ন্ত্রণে আনা যাবে।

সল্টলেকের একটি বেসরকারি হাসপাতালে আজ মৃত্যু হয় ৫৭ বছরের করোনা আক্রান্ত এক প্রৌঢ়ের। দমদমের বাসিন্দা ওই ব্যক্তির বিদেশ সফরের কোনও রেকর্ড নেই। সর্দি-কাশি-জ্বর নিয়ে গত ১৬ মার্চ তিনি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। ২০ মার্চ তার লালারস নাইসেডে পাঠানো হলে পরীক্ষা করে জানা যায়, তিনি কোভিড-১৯ আক্রান্ত।


হিমাচলের কাংড়ার বাসিন্দা ওই প্রৌঢ় একটি বেসরকারি হাসপাতালে সোমবার মারা যান। রাজ্যের অতিরিক্ত মুখ্যসচিব (স্বাস্থ্য) আর ডি ধীমান জানিয়েছেন, প্রৌঢ় গত ১৫ মার্চ আমেরিকা থেকে দিল্লি ফেরেন। রাজধানীতে তিনি কিছু দিন ছিলেন। গত পরশু ট্যাক্সি করে হিমাচলপ্রদেশে ফেরেন তিনি। পরে করোনার উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। তার লালারস পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু রিপোর্ট আসার আগেই তার মৃত্যু হয়। ধীমান জানান, যে ট্যাক্সি করে প্রৌঢ় হিমাচলে এসেছিলেন, সেই গাড়ির চালককে চিহ্নিত করা হয়েছে। তাঁকে এবং তার পরিবারের সদস্যদের গৃহ পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

এরই মধ্যে করোনা মোকাবিলায় রাজ্যগুলোকে নয়া পরামর্শ দিয়েছে আইসিএমআর। তারা বলেছে, পৃথক পৃথক হাসপাতালে নয়, করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসা হোক একটি নির্দিষ্ট হাসপাতালেই। অভিযোগ উঠছে, কোভিড-১৯ রোগের মোকাবিলায় হাইড্রো অক্সি-ক্লোর-কুইনিনের ঘাটতি দেখা দিয়েছে। কারণ, কালোবাজারি হচ্ছে। তবে আইসিএমআরের ডিজি বলরাম ভার্গব বলেন, ‘‘যে সব চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মী করোনা আক্রান্তদের দেখভাল করছেন, শুধু তাঁদেরই ওই ওষুধ দেয়া হচ্ছে।’’ ‘জনতা কার্ফু’ থেকে ইতিবাচক ফল পাওয়া গেছে কি না জানতে চাওয়া হলে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব লব আগরওয়াল বলেন, ‘‘জনতা কার্ফুর পরবর্তী পদক্ষেপই লকডাউন। তা ঠিক মতো করতে পারলে সুফল মিলবে। সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আসবে।’’

লকডাউন সত্ত্বেও জমায়েত আটকানো যাচ্ছে না অনেক রাজ্যেই। বিষয়টি নিয়ে সোমবার মুখ্যসচিব এবং পুলিশের প্রধানকে নিয়ে বৈঠক করেন পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরেন্দ্র সিংহ। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কার্ফু জারি হয়েছে পাঞ্জাবে। কার্ফু চলাকালীন কাউকে কোনও ছাড় দেওয়া হবে না। লকডাউন নিশ্চিত করতে রাজ্যে কার্ফু ঘোষণা করেছে মহারাষ্ট্র সরকারও। কার্ফু জারি হয়েছে পুদুচেরিতেও।


 
করোনা মোকাবিলায় দেশের ৩০টি রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের সব ক’টি জেলায় লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের হিসেব বলছে, দেশে এখনও পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি মানুষ করোনা আক্রান্ত হয়েছে মহারাষ্ট্রে। সেখানে কোভিড-১৯ রোগাক্রান্তের সংখ্যা ৭৪। তামিলনাড়ুতে সোমবার তিন জন নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।
সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা

৭১সংবাদ ডট কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
আরও খবর


সর্বশেষ সংবাদ
স্বাভাবিক হচ্ছে নিম্ন আদালতের বিচার কার্যক্রম
করোনায় আক্রান্ত কসোভোর প্রধানমন্ত্রী
কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া রুটে লঞ্চ-স্পিডবোট চলাচল বন্ধ
পাটের ন্যায্য মূল্য নিশ্চিতে সরকার সচেষ্ট: বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী
অতীতের রেকর্ড ভেঙে এক মাসে সর্বোচ্চ রেমিট্যান্স এলো দেশে
আগস্টের শেষের দিকে আবারও বন্যা হওয়ার আশঙ্কা
করোনাভাইরাসে দিনে দিনে আক্রান্তের হারও কমে যাচ্ছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
রাজাপুর সাবেক ফুটবল খেলোয়াড় মোঃ সিরাজুল ইসলাম দুলাল ইন্তেকাল
কুমিল্লায় করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে লাল -সবুজের উদ্যোগে বিনামূল্যে মাস্ক ও লিফলেট বিতরণ
করোনাভাইরাস ও আমাদের খামখেয়ালিপনা
করোনায় আক্রান্তরা ঘ্রাণশক্তিহীন হয়ে পড়ে
চান্দিনা থানার আয়োজনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন
চান্দিনার দোল্লাই নবাবপুর ইউনিয়ন কার্য্যালয়ে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে র‍্যালী ও আলোচনা সভা
করোনায় গরিবদের সাহায্যে দারুণ নজির গড়েছে তুরস্ক (ভিডিও)
Chief Advisor: A K M Mozammel Houqe MP
Minister, Ministry of Liberation War Affairs, Government of the People's Republic Bangladesh.
Editor & Publisher: A H M Tarek Chowdhury
Sub-Editor: S N Yousuf
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ৭১সংবাদ, ২০১৭
প্রধান কার্যালয় : ৫৩, মডার্ন ম্যানশন (১৪তলা), মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০
বার্তাকক্ষ : +৮৮-০২-৯৫৭৩১৭১, ০১৬৭৭-২১৯৮৮০, ০১৮৫৫-৫২৫৫৩৫
ই-মেইল :[email protected], [email protected], Web : www.71sangbad.com