মঙ্গলবার ২৪ মে ২০২২ ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
শিরোনাম: যে কারণে লঙ্কান অধিনায়কের বিপক্ষে ‘রিভিউ’ নেয়নি বাংলাদেশ!       এখনই ওপরে ওঠার সুযোগ দেখছেন না লিটন       ভারতের ক্লাবকে হারিয়ে সম্ভাবনা টিকিয়ে রাখলো বসুন্ধরা কিংস       অস্ট্রেলিয়ার সহকারী কোচ হলেন ভেট্টোরি       ইরানে ভবন ধসে নিহত ৬, আটকা পড়েছেন আরও অনেকে       ইউক্রেনে হামলার প্রতিবাদে রুশ কূটনীতিকের পদত্যাগ       বৈঠকে কোয়াড নেতারা, চীনকে ঠেকাতে ইন্দো-প্যাসিফিক অর্থনৈতিক কাঠামো      
শাবিপ্রবির আন্দোলনের সাথে জবি শিক্ষার্থীদের সংহতি প্রকাশ, ছাত্রলীগের বাধা
প্রকাশ: মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারি, ২০২২, ৮:০৬ পিএম |

শাবিপ্রবির আন্দোলনের সাথে জবি শিক্ষার্থীদের  সংহতি প্রকাশ, ছাত্রলীগের বাধা

শাবিপ্রবির আন্দোলনের সাথে জবি শিক্ষার্থীদের সংহতি প্রকাশ, ছাত্রলীগের বাধা

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবির) শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলনের সাথে সংহতি প্রকাশ করে উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবির)  সাধারণ শিক্ষার্থীরা প্রতীকী অনশন করেছে। (মঙ্গলবার) দুপুর ১২ টা নাগাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের উপরে প্লেকার্ড নিয়ে অবস্থান কর্মসূচি ও প্রতীকী অনশন করেছে সাধারণ শিক্ষার্থীরা। প্রতীকী অনশন ও অবস্থান কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করা রাকিব, আকাশ, রাফি ও আশরাফ সহ অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীরা বলেন, শাবিপ্রবির উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে সেখানকার সাধারণ শিক্ষার্থীরা টানা অনশন করলেও এখনো বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন নিশ্চুপ ভূমিকা পালন করছে। আমরা অবিলম্বে সারা দেশের শিক্ষার্থীদের সাথে সংহতি প্রকাশ করে তাদের যৌক্তিক দাবির সাথে আমরা একমত পোষণ করে উপাচার্য ফরিদের পদত্যাগ ও পুলিশি হামলার সুষ্ঠু তদন্ত করে বিচারের জোর দাবি জানাচ্ছি। 

নাট্যকলা বিভাগের শিক্ষার্থী সুমাইয়া সোমা দৈনিক তরুণ কন্ঠকে জানান, আমাদের শান্তিপূর্ণ অবস্থান কর্মসূচিতে একপর্যায়ে শাখা ছাত্রলীগের একাধিক নেতাকর্মীরা মোটরসাইকেলে বসে অনশনকারী শিক্ষার্থীদের ডেকে নিয়ে ব্যক্তিগতভাবে হয়রানি করে তাদের চলে যেতে বাধ্য করে। তারপর আমাদের সকলকে চলে যেতে বলে কিন্তু আমরা তখন প্লেকার্ড ও ব্যানার নিয়ে বসে থাকি। কিন্তু একপর্যায়ে শাখা ছাত্রলীগের একাধিক নেতাকর্মী এসে আমাদের প্লেকার্ডগুলো টেনে নিয়ে ছেড়ে ফেলে।তিনি আরও বলেন, এ ঘটনার সময় শহীদ মিনারের পাশে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর থাকলেও কোনো প্রকার বাধা দেননি এবং আমাদের কয়েকজন শিক্ষার্থী প্রক্টরিয়াল বডির সাথে কথা বলতে গেলে তারা চলে যান সেখান থেকে। পরবর্তী সময়ে আমরা প্রক্টরের নিকট লিখিত অভিযোগ দিতে গেলে তিনি বলেন, "তারা তোমাদের ক্যাম্পাসের বড় ভাই, ভুল করেছে, তোমরা মাপ করে দাও তাদের"। প্রতীকী অনশনে অংশগ্রহণ করা শিক্ষার্থীরা জানান, প্লেকার্ড ও ব্যানার ছেড়ে ফেলা নেতাকর্মীরা জবি শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম আক্তার হোসেনের অনুসারী ছিলেন। এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. মোস্তফা কামাল বলেন, আমাদের কাছে এমন কোনো লিখিত অভিযোগ আসেনি অনেকেই তো অনেক কথা বলে ক্যাম্পাসে। আমরা কোনো অভিযোগ ফেলে অবশ্যই বিষয়টা দেখতাম।






আরও খবর


Chief Advisor:
A K M Mozammel Houqe MP
Minister, Ministry of Liberation War Affairs, Government of the People's Republic Bangladesh.
Editor & Publisher: A H M Tarek Chowdhury
Sub-Editor: S N Yousuf

Head Office: Modern Mansion 9th Floor, 53 Motijheel C/A, Dhaka-1223
News Room: +8802-9573171, 01677-219880, 01859-506614
E-mail :[email protected], [email protected], Web : www.71sangbad.com