সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১১ আশ্বিন ১৪২৯
শিরোনাম: পঞ্চগড়ের করতোয়া নদীতে নৌকাডুবি নিহত বেড়ে ৩২       ১৫৩ কোম্পানির শেয়ারে ক্রেতা নেই       ৩ কোম্পানির লেনদেন বন্ধ কাল       সূচক পতনে লেনদেন       ইবনে সিনা স্পট মার্কেটে যাচ্ছে মঙ্গলবার       সাংবাদিক রণেশ মৈত্র না ফেরার দেশে       ই-জেনারেশনের পর্ষদ সভা ৪ অক্টোবর      
জি-মেইলের স্টোরেজ বাড়াতে নতুন ফিচার
প্রকাশ: মঙ্গলবার, ৫ জুলাই, ২০২২, ১২:৩৪ পিএম |

জি-মেইলের স্টোরেজ বাড়াতে নতুন ফিচার

জি-মেইলের স্টোরেজ বাড়াতে নতুন ফিচার

জি-মেইলে সম্প্রতি কয়েকটি আপডেট নিয়ে এসেছে গুগল। তার মধ্যে অন্যতম হল নতুন ‘স্টোরেজ ইউজড’ ইন্ডিকেটর টুল। এর ফলে গুগল অ্যাকাউন্টের স্টোরেজ স্পেস পরিচালনা করা আরও সহজ হবে।

এর মাধ্যমে ব্যবহারকারী দ্রুত বুঝতে পারবেন তাদের জি-মেইল কতটা স্টোরেজ স্পেস দখল করে রাখছে। এই ফিচারটি গুগলের স্টোরেজ ম্যানেজমেন্ট টুলে নিয়ে যায় সরাসরি। তাই ব্যবহারকারী বিভিন্ন গুগল পরিষেবায় কতটা স্টোরেজ স্পেস ব্যবহার করা হচ্ছে তাও দেখতে পাবেন। ফলে নিজের প্রয়োজন মতো পরিষ্কার করে ফেলা যাবে স্পেস।

বেশির ভাগ পরিষেবাই এখন ই-মেইল নির্ভর। ফলে নানা ধরনের কাজের জন্য ইমেল আইডি ব্যবহার করতে হয়। আর একের পর এক মেইল এসে ভরে যায়। ফলে এসব দরকারি এবং অদরকারি মেইল কতটা স্পেস পূর্ণ করে ফেলছে তার হিসেব রাখাটা
খুবই জরুরি। নতুন এই ইন্ডিকেটর ফিচারটি খুব সহজে আর কম সময়ে আপনাকে এই আপডেট জানিয়ে দেবে।

অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএস উভয় ডিভাইসেই এটি পাওয়া যাবে। ফিচারটি ব্যবহার করতে জি-মেইলের প্রোফাইলে যেতে হবে। সেখানে দেখা যাবে জি-মেইল কতটা ‘ক্লাউড স্টোরেজ স্পেস’ ব্যবহার করছে। যাদের ই-মেইল ইনবক্স ফুল হয়ে আছে এবং বেশ কিছুটা অংশ খালি করতে চান তাদের জন্য এই ফিচারটি খুবই লাভ জনক।

গুগল অ্যাকাউন্টের স্টোরেজ স্পেস পরিষ্কার করতে জি-মেইলের নতুন ফিচারটি যেভাবে ব্যবহার করবেন-

> নিজের স্মার্টফোনে জি-মেইল অ্যাপ খুলুন এবং স্ক্রিনের উপরের ডানদিকে প্রোফাইল আইকনে ট্যাপ করুন।

> এরপর যাওয়া যাবে ক্লাউড আইকনে। এখানেই জি-মেইল অ্যাপ কতটা স্টোরেজ স্পেস ব্যবহার করছে তার বিশদ বিবরণ পাবেন।

> অন্য যে সব গুগল পরিষেবাগুলো স্টোরেজ স্পেস দখল করেছে সে সম্পর্কেও জানতে পারবেন। ব্যবহৃত স্টোরেজ স্পেস কতটা তা বোঝার জন্য গুগল একটি গ্রাফও দেখায়।

> স্টোরেজ ম্যানেজারে শুধু ‘ক্লিন আপ স্পেস’ অপশন ব্যবহার করতে পারেন। তবে এই ফিচারে ‘লারজ আইটেমস’-এর অংশও দেখতে পাবেন। ফলে অপ্রয়োজনীয় বড় ফাইলগুলো মুছে একবারে অনেকটা জায়গা ফাঁকা করতে পারবেন খুব সহজেই।








Chief Advisor:
A K M Mozammel Houqe MP
Minister, Ministry of Liberation War Affairs, Government of the People's Republic Bangladesh.
Editor & Publisher: A H M Tarek Chowdhury
Sub-Editor: S N Yousuf

Head Office: Modern Mansion 9th Floor, 53 Motijheel C/A, Dhaka-1223
News Room: +8802-9573171, 01677-219880, 01859-506614
E-mail :[email protected], [email protected], Web : www.71sangbad.com