রোববার ২৯ জানুয়ারি ২০২৩ ১৬ মাঘ ১৪২৯
শিরোনাম: পুতিনের জীবিত থাকা নিয়েই এবার সন্দেহ প্রকাশ করলেন জেলেনস্কি       মার্সেল দ্বিতীয় বিভাগ দাবা লিগ       শহীদ আসাদ আজ অবহেলিত : মোস্তফা       আসাদের ইতিহাস আড়ালের চেষ্টা চলছে : মোমিন মেহেদী       বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বে শুক্রবার আরও চার মুসল্লির মৃত্যু       সিরিয়ায় মার্কিন ঘাঁটিতে ড্রোন হামলা       ঢাকার মার্কিন দূতাবাস যা বলল ভিসা জালিয়াতি নিয়ে      
বেগুনি রঙের ধান চাষ হয়েছে লক্ষ্মীপুরে।
এবার লক্ষ্মীপুরেই শুরু হয়েছে বেগুনি রঙের ধান চাষ, বাম্পার ফলন
বেগুনি রঙের ধানের চালের ভাত হৃদরোগ ও ক্যান্সারের ঝুঁকি কমাতে পারে এবং লিভার সতেজ রাখে।
প্রকাশ: রোববার, ২৭ নভেম্বর, ২০২২, ১০:৫৯ এএম |

এবার লক্ষ্মীপুরেই শুরু হয়েছে বেগুনি রঙের ধান চাষ। চলতি আমন মৌসুমে ৪০ শতক জমিতে বেগুনি রঙের ধান চাষ করে বাম্পার ফলন পেয়েছেন কৃষক সিরাজ উদ্দিন। সবুজ ফসলের মাঠে এই ভিন্ন রং ও ভিন্ন জাতের ধান চাষ করে সবার দৃষ্টি কেড়েছেন লক্ষ্মীপুরের সদর উপজেলার শাকচর ইউনিয়নের শাকচর গ্রামের এই কৃষক।

শুক্রবার (২৫ নভেম্বর) একই উপজেলার চর আলী হাসান গ্রামে বেগুনি রঙের ধান কেটে মাড়াই করেছেন সিরাজ উদ্দিন। ফলনও হয়েছে ভালো। শতকপ্রতি ৫০ কেজি ধান পাবেন বলে জানিয়েছেন সিরাজ উদ্দিন। চিকন কিংবা মোটা নয়, মাঝারি ধরনের এ ধানের চাউলের ভাত খেয়ে ভবিষ্যতে এ ধান চাষ ছড়িয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

সিরাজ উদ্দিন জানান, একই এলাকার বর্গা চাষী তার জামাতা আজাদ তার এক বন্ধুর মাধ্যমে চীন থেকে ৩ কেজি ধান এনেছিলেন চাষ করার জন্য । কিন্তু তিনি মহাজনদের থেকে জমি না পাওয়ায় পরে ধানগুলো শ্বশুর সিরাজকে দেন। সিরাজ উদ্দিন সেগুলো অন্য ধানের মতোই নিজের জমিতে চাষ করেন। এখন প্রথম বছরই ভালো ফলন পেয়েছেন। রোপণের সময় প্রতি গোছায় ২-৩টি ধানের চারা রোপণ করেছিলেন। শুক্রবার ধান কাটার সময় প্রতি গোছায় ১৫-১৬টি ধানের শীষ কেটেছেন। চাল ও ভাতের রং এবং স্বাদ কেমন হবে, তা জানাতে পারেননি তিনি।



সিরাজ উদ্দিনের ধানখেতের প্রতিবেশী রেনু বেগম জানান, 'এবারই প্রথম বেগুনি রঙের ধান দেখলাম। সবুজ মাঠে বেগুনি ধান দেখতে খুবই সুন্দর লেগেছে।'

মাঠে গিয়ে দেখা গেছে, ধান বেগুনি হলেও গাছের পাতা সবুজ। তাই কৃষকদের কাছে এই ধান বেগুনি রঙের ধান বা রঙিন ধান নামে পরিচিতি পেতে শুরু করেছে। এ সময় গণনা করে প্রতি শীষে গড়ে ২১৬টি ধান পাওয়া গেছে।

কৃষক মো. সিরাজ উদ্দিন জানান, অন্যান্য জাতের ধানের চেয়ে বেগুনি রঙের ধানের কুশির সংখ্যা বেশি হওয়ায় এ ধানের ফলন বেশি হয়েছে। ধানের শীষের গোড়া শক্ত হওয়ায়  ঘূর্ণিঝড় সিত্রাংয়ের বাতাসে ধান নুয়ে পড়েনি। পোকা-মাকড়ের আক্রমণ কম ছিল। খেতে একবার করে সার ও কীটনাশক দিয়েছিলেন।



লক্ষ্মীপুর জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক ড. জাকির হোসেন জানান, বেগুনি রঙের ধান চাষ সম্পর্কে তাদের কাছে কোনো তথ্য নেই। বেগুনি ধান চাষের খবর ছড়িয়ে পড়ার পর প্রতিদিন স্থানীয়রা একনজর দেখতে ভিড় জমান  ধানখেতে।

এদিকে বেগুনি রঙের ধান সম্পর্কে জার্নাল অভ অ্যাগ্রিকালচার অ্যান্ড ফুড কেমিস্ট্রির একটি গবেষণার বরাত দিয়ে মার্কিন স্বাস্থ্যবিষয়ক সংবাদমাধ্যম মেডিকেলনিউজটুডে জানিয়েছে, বেগুনি রঙের ধানের চালের ভাত হৃদরোগ ও ক্যান্সারের ঝুঁকি কমাতে পারে এবং লিভার সতেজ রাখে।






আরও খবর


Chief Advisor:
A K M Mozammel Houqe MP
Minister, Ministry of Liberation War Affairs, Government of the People's Republic Bangladesh.
Editor & Publisher: A H M Tarek Chowdhury
Sub-Editor: S N Yousuf

Head Office: Modern Mansion 9th Floor, 53 Motijheel C/A, Dhaka-1223
News Room: +8802-9573171, 01677-219880, 01859-506614
E-mail :[email protected], [email protected], Web : www.71sangbad.com